বিভাগের আর্কাইভঃ ফটো গ্যালারি

Photo Gallery in Bangla

কক্সবাজারে জাতিসংঘের তিন সংস্থার প্রধান কতৃক সংবাদ সম্মেলন

২৬ এপ্রিল ২০১৯: জাতিসংঘের তিনটি সংস্থার প্রধান– জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) হাইকমিশনার, ফিলিপ্পো গ্রান্ডি; আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) মহাপরিচালক, আন্তোনিও ভিটোরিনো; জাতিসংঘের জরুরি ত্রাণবিষয়ক সমন্বয়ক এবং জাতিসংঘের মানবিক বিষয়াদি সমন্বয়কারী অফিসের (ওসিএইচএ) প্রধান মার্ক লোওকক, রোহিঙ্গা শরনার্থীদের বর্তমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য বাংলাদেশে আসেন। গত শুক্রবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে কক্সবাজারের স্থানীয় একটি হোটেলে তিন সংস্থার প্রধানকে নিয়ে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। প্রায় ৭০ জন স্থানীয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পোও সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহন করেন। জাতিসংঘের নেতৃবৃন্দ রোহিঙ্গা শরনার্থী সংকট নিরসনে সকলকে একসাথে কাজ করার আহ্বান জানান এবং এই সমস্যার দ্রুত সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার পাশাপাশি যে কোন সমস্যায় পাশে থাকার আশ্বাস পুনর্ব্যক্ত করেন। সংবাদ সম্মেলনটি সঞ্চালনা করেন জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ন্যাশনাল ইনফরমেশন অফিসার।

      

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের তিন দশকব্যাপী সেবা ও ত্যাগ

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষীরা বিভিন্ন সংস্কৃতি ধারন এবং ভিন্ন ভাষায় কথা বলে, কিন্তু তাদের কাজের উদ্দেশ্যে এক যেমন, ঝুকিপুর্ন গোষ্টীকে নিরাপত্তা প্রদান এবং দ্বন্দ থেকে শান্তির পথে এগিয়ে যাওয়ার জন্য সংগ্রামরত দেশগুলোকে সমর্থন করা।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা অভিযানে বাংলাদেশ সর্ববৃহৎ অবদানকারী দেশগুলোর একটি, দেশটি সর্বপ্রথম ১৯৮৮ সালে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে পোশাকধারী কর্মী প্রেরন করে । গত তিন দশকব্যাপী এদেশের সাহসী পূরুষ এবং নারী বিভিন্ন দেশে শান্তিরক্ষা মিশনে সেবা প্রদান করে অপরিমেয় অবদান রেখে চলেছে।

ডিসেম্বর ২০১৭ সাল পর্যন্ত পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে জাতিসংঘের ১০টি মিশনে বাংলাদেশের সর্বমোট ৭২৪৬ জন সৈন্য ও পুলিশ কাজ করছে। এসব বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীরা বিভিন্ন ধরনের ভুমিকা পালন করে থাকেন যেমন, সুরক্ষা প্রদান, প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান এবং রাস্তাঘাট নির্মান, জাতিসংঘের নীল পতাকার অধীনে থেকেই তারা এসমস্ত দেশের সরকার ও জনগনের সেবা করছে।

এবছর শান্তিরক্ষী মিশনে বাংলাদেশের অবদানের ৩০ তম বার্ষিকী। জাতিসংঘ তাদের সাহসী অবদানের স্বৃকৃতী এবং প্রশংসা জ্ঞাপন করছে।

  

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষে কর্মশালা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত

01ঢাকা ২৯ অক্টোবর ২০১৬ :  জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাতিসংঘ সমিতি (ডুমুনা) এবং জাতিসংঘ যুব ও ছাত্র সমিতি বাংলাদেশ (ইউনিস্যাব) যৌথ ভাবে দিনব্যাপী এক কর্মশালা ও সেমিনার আয়োজন করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর সি মজুমদার হলে আয়োজিত এই সেমিনারে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ২০০ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সেমিনারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (জাতিসংঘ) মোসাম্মত শাহানারা মনিকা বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন এবং জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান  মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডালেম চন্দ্র বর্মণ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ডঃ দেলোয়ার হোসেন এবং ঢাকা আহসানিয়া মিশনের পরিচালক ( যোগাযোগ) কাজি আলি রেজা  রিসোর্স পার্সন হিসেবে বক্তব্য রাখেন। সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনিস্যাব সভাপতি মামুন মিয়া ও ডুমুনা সভাপতি ওয়াহিদ সিদ্দিক। এতে মডেল ইউএন সম্মেলনের বিভিন্ন পদ্ধতি এবং জাতিসংঘ দিবসের প্রাসঙ্গিকতা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়াও একটি চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। সেমিনারে উপস্থিত অংশগ্রহণকারীদের মাঝে জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী বিতরণ করা হয়।

জাতিসংঘ দিবসে ঢাকায় চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা এবং র‍্যালীর আয়োজন

01    ২৪ অক্টোবার ২০১৬: জাতিসংঘ দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র, ঢাকাবাসী সংগঠন, লাইফ এবং বাংলাদেশ জাতীয় যুব সংগঠন ফেডারেশন  যৌথভাবে হাজারীবাগ পার্ক কমিউনিটি সেন্টারে এক শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা এবং র‍্যালীর আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আক্তারুজ্জামান এবং বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান । ঢাকাবাসী সংগঠনের সভাপতি শুকুর সালেক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। বিভিন্ন স্কুল থেকে আগত শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী এই চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও জাতিসংঘের স্মরণিকা প্রদান করা হয়। স্থানীয় সমাজকর্মী ও যুব প্রতিনিধিবৃন্দ এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন, পরে সবার অংশগ্রহণে এক র‍্যালীর আয়োজন করা হয়।

চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাবে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ে সেমিনার আয়োজিত

01চট্রগ্রাম,মঙ্গলবার ০৬ অক্টোবর ২০১৬: চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাব এবং নিপ্পণ একাডেমীর সহযোগিতায় ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাব অডিটোরিয়ামে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বিষয়ে একটি সেমিনারের আয়োজন করে।  বিভাগীয় পর্যায়ে এসডিজি প্রচারণা এবং ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি’র ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে  জনগণের সম্পৃক্ততা বাড়ানোর লক্ষ্যেই এই সেমিনারটির আয়োজন করা হয়। উল্লেখ্য বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নে বাংলাদেশ সরকার মূল ভূমিকা পালন করছে। জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলো কর্তৃক ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে নিউইয়র্কে টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা ২০৩০ গৃহীত হয় । সেমিনারে  জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান, এসডিজি  উন্নয়ন  লক্ষ্যমাত্রা এবং তার প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে আলোচনা করেন। জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী উদ্ধৃতি করে তিনি বলেন কাওকে বাদ না রেখে এই উন্নয়ন কার্যক্রম এগিয়ে নিতে হবে, এবং জাতিসংঘ এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার এবং অন্যান্য সহযোগী প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করে চলেছে। বিস্তারিত পড়ুন

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ক সেমিনার

e.

চট্রগ্রাম, বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০১৬: টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা-২০৩০ অর্জনে তরুণদের সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র এবং চট্রগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি যৌথভাবে ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি মিলনায়তনে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ে একটি সেমিনারের আয়োজন করে। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন  জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান। চট্টগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির মাননীয় উপাচার্য ডঃ মাহফুজুল হক চৌধুরী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন এবং বিশেষ হিসেবে বক্তব্য রাখেন  নিপ্পন একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ও জাপানের অনারারি কনসাল জেনারেল  মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম। জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তার বক্তব্যে ১৭টি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা এবং ১৬৯টি  টার্গেট নিয়ে আলোচনা করেন যা ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সদস্যদেশগুলো কর্তৃক গৃহীত হয়। উল্লেখ্য ১৫ বছরের জন্য তৈরী এই ১৭টি  বৈশ্বিক লক্ষ্যমাত্রা ২০১৬ থেকে শুরু হয়ে ২০৩০ সাল নাগাদ অর্জনের সময়সীমা নির্ধারিত হয়েছে। উন্মুক্ত  আলোচনা পর্বে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। অনুষ্ঠানে  জাতিসংঘের মানবিক কার্যক্রমের ওপর একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। উপস্থিত ছাত্রছাত্রীর মাঝে জাতিসংঘের প্রকাশনাসহ এসডিজি  পোষ্টকার্ড বিতরণ  করা হয় ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো মডেল জাতিসংঘ সম্মেলন ২০১৬

untitled-1  রাজশাহী, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬: জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের সহযোগিতায় বাংলাদেশ জাতিসংঘ যুব ও ছাত্র সমিতি গত ২৯ সেপ্টেম্বর  থেকে ০২অক্টোবর  পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চার দিনব্যাপী “ইউনিস্যাব মডেল জাতিসংঘ সম্মেলন ২০১৬” আয়োজন করে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে তিন শতাধিক প্রতিনিধি এই মডেল সম্মেলনে অংশ নেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের  সহযোগী অধ্যাপক ও ছাত্র উপদেষ্টা মোঃ মিজানুর রহমান, জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান এবং সাবেক ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক মোঃ সাদেকুল আরেফিন মাতিন বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন। ইউনিস্যাব সভাপতি মামুন মিয়া উদ্বোধনী পর্বে সভাপতিত্ব করেন। জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  এসডিজি লক্ষ্য মাত্রা অর্জনে ও জাতি গঠনে তরুণ নেতাদের সংযুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান। এই ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল বিশ্ব সম্প্রদায়ের মাঝে অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত সন্ধি। বিস্তারিত পড়ুন

জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র কর্তৃক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসডিজি ক্যাম্পেইন উদ্বোধন

১৬ আগস্ট ২০১৬: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডঃ আআমস আরেফিন সিদ্দিক গত ১৬ আগস্ট  ঢাকাস্থ  জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র আয়োজিত ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাতিসংঘ সমিতির সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত এসডিজি বিষয়ক এক ক্যাম্পেইন এর উদ্ধোধন করেন। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় উপাচার্য বলেন যে, এমডিজি অর্জনে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য সাফল্য দেখিয়েছে এবং তিনি আশা প্রকাশ করেন যে এই প্রবণতা এসডিজি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রেও অব্যাহত থাকবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে ক্যাম্পেইন এর উদ্বোধনকালে তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় জাতিসংঘের ইতিবাচক ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন। বিশেষ করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী সময়ে জাতিসংঘের বেশকিছু সংস্থার অবদানের কথা স্মরণ করেন।
জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, জাতীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার বার্তাসমূহ প্রচার এবং এগুলোকে ধারণ করার জন্য সর্বজনীন অংশগ্রহণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ এবং এই প্রক্রিয়া বাস্তবায়নে তরুণদের অংশগ্রহণও নিশ্চিত করতে হবে। ডুমুনা এবং জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র যৌথভাবে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘমেয়াদী এসডিজি প্রচারণা চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে ঐক্যমত প্রকাশ করে। ডুমুনার মডারেটর ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ডঃ দেলোয়ার হোসেন তার উদ্বোধনীতে বক্তব্যে এই প্রচারণমূলক কার্যক্রমে পূর্ণাঙ্গ সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। ডুমুনার সঙ্গে সম্পৃক্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানটিতে অংশগ্রহণ করেন।

ঢাকায় পালিত হল নেলসন ম্যান্ডেলা আন্তর্জাতিক দিবস

01 ঢাকা, সোমবার ১৮ জুলাই ২০১৬: নেলসন ম্যান্ডেলা আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র ও জাতিসংঘ যুব ও ছাত্র সমিতি বাংলাদেশ (ইউনিস্যাব) যৌথভাবে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের লাইব্রেরীতে এক পোষ্টার প্রদর্শনী, ভিডিও শো ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য প্রদান করেন  জাতিসংঘ আবাসিক সমন্বয়কারীর কার্যালয়ের শান্তি ও উন্নয়ন উপদেষ্টা এডওয়ার্ড রিস। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘ আবাসিক সমন্বয়কারীর কার্যালয়ের প্রধান পেম ছুকি ওয়াংদি এবং ইউনিস্যাবের প্রতিনিধি আকিব মোহাম্মাদ শাতিল। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত শিক্ষার্থীরা আলোচনা ও প্রশ্ন-উত্তর পর্বে অংশ নেন এবং ম্যান্ডেলার জীবন দর্শনের আলোকে ইতিবাচক বিশ্ব গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে পোষ্টার প্রদর্শনী, নেলসন ম্যান্ডেলার জীবনীর উপর ভিডিও শো ও জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী পাঠ করা হয়। জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণীর কপি এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ক বাংলা পোস্টকার্ড অংশগ্রহণকারীদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

মডেল জাতিসংঘ সম্মেলন ২০১৬ অনুষ্ঠিত

Untitled-1ঢাকা, শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০১৬: ঢাকাস্থ্ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের সহযোগিতায় জাতিসংঘ যুব ও ছাত্র সমিতি বাংলাদেশ ( ইউনিস্যাব) আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ মিলনায়তনে গত ১৩ জুলাই থেকে ১৬ জুলাই পর্যন্ত ৪ দিনব্যাপী জাতিসংঘ মডেল সম্মেলন (বানমুন-২০১৬) আয়োজন করে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৬৫০ জনেরও বেশি প্রতিনিধি জাতিসংঘের এই মডেল সম্মেলনে অংশ নেয়। প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন মাননীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট সনজিদা খানম। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকাস্থ্ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান। বিশেষ অতিথির আসন অলঙ্করণ করেন মাননীয় সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলজের অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তামিম আহমেদ চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ সৈয়দ মোঃ শাইখ ইমতিয়াজ এবং বিস্তারিত পড়ুন