বিভাগের আর্কাইভঃ ফটো গ্যালারি

Photo Gallery in Bangla

রুয়ান্ডা গনহত্যা দিবস পালন: আলোচনা সভা, কবিতা পাঠ, নাটিকা, মোমবাতি প্রজ্বলন

Guests are seen at Rwanda Genocide Day event. Photo: UNIC Dhakaঢাকা, ৭ এপ্রিল  ২০১৬: রুয়ান্ডা গনহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভারসিটি (ডিআইইউ) যৌথ ভাবে গত ৭ এপ্রিল  ২০১৬ ডিআইইউ অডিটোরিয়ামে এক অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করে। রুয়ান্ডা গনহত্যার শিকার ব্যাক্তিদের স্মরণে মোমবাতি প্রজ্জলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানমালার শুরু হয়। এছাড়া অনুষ্ঠানের উল্লেখযোগ্য অংশ ছিল আলোচনা সভা, কবিতা পাঠ ও নাটিকা প্রদর্শন। অনুষ্ঠানে বক্তাগন গনহত্যার মত ঘৃণ্য অপরাধের বিরুদ্ধে সবাইকে জোড়ালো কন্ঠে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান এবং গভীর শ্রদ্ধার সাথে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং মুক্তিযোদ্ধাদের কথা স্মরণ করেন যারা মাতৃভূমির জন্য প্রান বিসর্জন দিয়েছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ এম. ইসলামের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ তথ্য কমিশনের প্রধান তথ্য কমিশনার অধ্যাপক ড. মো: গোলাম রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মাহমুদ হাসান ও ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান। এতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বিস্তারিত পড়ুন

ঢাকায় আন্তর্জাতিক যুব দিবস উদযাপন

আন্তর্জাতিক যুব দিবস র‍্যালীঢাকা, ১২ আগস্ট ২০১৫: আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্যকেন্দ্র, ঢাকাবাসী, হোপ ৮৭ এবং ন্যাশনাল ইয়ুথ ফেডারেশন অব বাংলাদেশ যৌথভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এক আলোচনা সভা ও র‍্যালীর আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর ডঃ শহিদ আখতার হুসেইন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘ তথ্যকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম. মনিরুজ্জামান । অংশগ্রহণকারীদের মাঝে জাতিসংঘ মহাসচিব প্রদত্ত বাণী এবং এলিক্স কার্টুন সম্বলিত যুব দিবস পোস্টার বিতরণ করা হয়। আলোচনা শেষে যুবকদের অংশগ্রহনে এক বর্ণিল  র‍্যালী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। অন্যান্যদের মধ্যে ঢাকাবাসী-এর প্রেসিডেন্ট শুকুর সালেক, ন্যাশনাল ইয়ুথ ফেডারেশন অব বাংলাদেশ-এর প্রেসিডেন্ট দুলাল বিশ্বাস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সাইদ রেজাউর রহমান, হোপ ৮৭-এর প্রতিনিধি মিস ক্যারোলিন জ্যাকি, সাংবাদিক শিরীন সুলতানা আলোচনা পর্বে বক্তব্য রাখেন। অংশগ্রহণকারী যুবকরাও আলোচনায় যোগ দেন এবং স্বেচ্ছাসেবামূলক কর্মকাণ্ডে তাদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন। তারা এলিক্স ক্যাম্পেইন তাদের আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেন।

এমডিজি রির্পোট ২০১৫ প্রকাশ উপলক্ষ্যে টেকসই উন্নয়ন বিষয়ে গোলটেবিল বৈঠক আয়োজন

এমডিজি রির্পোট ২০১৫  প্রকাশঢাকা, ৭ জুলাই ২০১৫: এমডিজি রিপোর্ট ২০১৫ প্রকাশ উপলক্ষে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র ৬ জুলাই এক গোল-টেবিল আলোচনার আয়োজন করে। ৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ ৮টি এমডিজি লক্ষ্যমাত্রা ও প্রস্তাবিত স্হিতিশীল উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ে আলোচনায় অংশগ্রহণ করে। অর্থনীতি ও সমাজবিদ ডঃ জহিরুল আলম অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন এবং জাতিসংঘ বিষেশজ্ঞ ও ঢাকা আহছানিয়া মিশনের পরিচালক (কমিউনিকেশন) কাজী আলী রেজা সভাপতিত্ব করেন। জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজামান গোল-টেবিল আলোচনাটি সঞ্চালনা করেন এবং এমডিজি রির্পোট ২০১৫ এর প্রধান প্রধান তথ্য ও উপাত্তসমূহ তুলে ধরার মাধ্যমে গত পনের বছরে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের এমডিজির লক্ষ্য পূরণে যে কাঙ্খিত সফলতা অর্জন করেছেন সেটার উল্লেখ্য করেন। বিস্তারিত পড়ুন

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত

06. Yoga Demonstrationঢাকা, ২১ জুন ২০১৫: জাতিসংঘ বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ যোগ সমিতির সহযোগিতায় ইন্দিরা গান্ধী  সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ২১শে জুন ঢাকার জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের আয়োজন করে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন। জাতিসংঘ বাংলাদেশের আবাসিক সমন্বয়কারী জনাব রবার্ট ওয়াটকিন্স ও ভারতের হাইকমিশনার জনাব পঙ্কজ শরন বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা প্রদান করেন। যোগ শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি যোগ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়, এছাড়া যোগ বিষয়ক একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। জাতীয় জাদুঘর প্রাঙ্গনে একটি ছবি প্রদর্শনীরও আয়োজন করা হয়। ছয় শতাধিক অংশগ্রহণকারী অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন। উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১১ই ডিসেম্বরে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ প্রতিবছরের ২১শে জুনকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস ঘোষণা করে। ইউটিউব ভিডিও

চট্টগ্রামে জাতিসংঘের ৭০তম বার্ষিকী ও এসডিজি বিষয়ক সেমিনার আয়োজন

UN 70th Anniversary logo_English_CMYKচট্টগ্রাম, ১৫ জুন ২০১৫: জাতিসংঘের ৭০তম বার্ষিকী পালন ও ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘ সম্মেলনগুলো সম্পর্কে সচেতনতামূলক কর্মসূচির অংশ হিসেবে, চট্টগ্রাম প্রযুক্তি ও প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) ও নিপ্পন একাডেমির সঙ্গে যৌথভাবে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র ১৫ই জুন চুয়েট মিলনায়তনে এক সেমিনারের আয়োজন করে। চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ জাহাঙ্গীর আলম সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা প্রদান করেন এবং জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জাপান দূতাবাসের অনারারি কনসাল-জেনারেল জনাব মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম, চুয়েটের উপ-উপাচার্য, রেজিস্ট্রার এবং অংশগ্রহণকারী একজন ছাত্রী। প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী সেমিনারে যোগ দেয় ও কয়েকজন প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণ করে। 2015-Time-for-Global-Action_English-e1429068948937সেমিনারে প্রধানত সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি) বিষয়ে সেপ্টেম্বরে নিউ-ইয়র্ক সম্মেলন, উন্নয়নের জন্য অর্থায়ন (এফএফডি) বিষয়ে আদ্দিস আবাবায় জুলাই সম্মেলন ও ডিসেম্বরে কপ২১-প্যারিস সম্মেলনের উদ্দেশ্য ও প্রভাব সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। টেকসই উন্নয়ন, বাংলাদেশের জলবায়ু পরিবর্তন ও এগুলোতে তরুণ সম্প্রদায় কিভাবে অবদান রাখতে পারে এ বিষয়গুলো আলোচনায় স্থান পায়। একই বিষয়ে ১৪ জুন চট্টগ্রামের নিপ্পন একাডেমিতে অপর একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

পরিবেশ রক্ষা এবং কার্বন নির্গমন হ্রাস বিষয়ে প্র্তিশ্রুতির মাধ্যমে বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০১৫ পালিত

01ঢাকা, ৮ জুন ২০১৫: বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকাস্হ জাতিসংঘ তথ্যকেন্দ্র এবং জাতিসংঘ ইয়ুথ এন্ড স্টুডেন্ট আ্যাসোসিয়েশন (ইউনিস্যাব) গত ৮ জুন তথ্য কেন্দ্রের সম্মেলন কক্ষে এক গোল টেবিল বৈঠকের আয়োজন করে। এমডিজি এবং ২০১৫-পরবর্তী উন্নয়ন বিষয়ক এই আলোচনায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মাননীয় যুগ্মসচিব জনাব মাহমুদ হাসান প্রধান অতিথির আসন অলঙ্কৃত করেন।  ইউএনডিপি’র টেকসই উন্নয়ন বিষয়ক সিনিয়র উপদেষ্টা জনাব আমিনুল ইসলাম এবং ইউনিডো বাংলাদেশ এর প্রধান কর্মকর্তা জনাব যাকি-উজ-জামান মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ইউনিস্যাব প্রেসিডেন্ট মামুন মিয়া এবং সাংবাদিক মহিউদ্দিন কাওসার।  আলোচনায় অংশগ্রহণকারীবৃন্দ পরিবেশ রক্ষা এবং কার্বন হ্রাস কমানোর ব্যাপারে তাদের প্র্তিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। জাতিসংঘের ৭০ বছর পূর্তি এবং টাইম ফর গ্লোবাল অ্যাকশন- ২০১৫ প্রতিপাদ্য নিয়ে আয়োজিত বৈঠকটি সঞ্চালনা করেন ঢাকাস্হ জাতিসংঘ তথ্যকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজামান। পরে অংশগ্রহণকারীগণ প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া পরিবেশ বিষয়ে জাতিসংঘের একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয় এবং দিবসটি উপলক্ষ্যে বাংলায় অনুবাদকৃত জাতিসংঘ মহাসচিবের বানীটি  অংশগ্রহণকারীদের মাঝে বিতরন করা হয়।

বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস পালিত

Hon'ble Prime Minister hands over gift to injured peacekeepersঢাকা, ৩১ মে ২০১৫: আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস এবং শান্তিরক্ষা মিশনে নিহত ও আহত বাংলাদেশী সৈন্যদের সম্মান জানাতে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, জাতিসংঘ আবাসিক সমন্বয়কারীর কার্যালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৩১ মে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে নিহত ও আহত বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীদের সম্মানিত করা হয়। বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা প্রদান করেন এবং নিহত শান্তিরক্ষীদের পরিবারের সদস্য ও আহত শান্তিরক্ষীদের হাতে ক্রেস্ট ও পুরস্কার তুলে দেন। মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী, সশস্ত্র বাহিনীর ৩ প্রধান, পররাষ্ট্র সচিব, পুলিশের ভারপ্রাপ্ত প্রধান ও উদ্ধর্তন সামরিক কর্মকর্তারা এই সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। জাতিসংঘ আবাসিক সমন্বয়কারী রবার্ট ওয়াটকিন্স তার সূচনা বক্তব্যে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের প্রশংশা ও নিহত শান্তিরক্ষীদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন। সশস্ত্র বাহিনী, পুলিশ ও বেসামরিক কর্মকর্তা, মন্ত্রী, এমপি, শিক্ষাবিদ, সুশীল সমাজের সদস্য, জাতিসংঘ কর্মকর্তা ও কূটনীতিবিদসহ দেড় হাজারের অধিক অংশগ্রহণকারী এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া একই দিন সকালে সশস্ত্র বাহিনী, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে একটি পিস রানের আয়োজন করা হয় যেখানে মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধান অতিথি ও জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। – ছবিঃ এ এফ ডি

আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস পালিত

FD02ঢাকা, ১৬ মে ২০১৫: আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস উপলক্ষে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র, ওয়ার্ল্ডওয়াইড ফ্যামিলি লাভ মুভমেন্ট, ঢাকা আহছানিয়া মিশন ও ধ্রুবতারা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন যৌথভাবে ১৬ই মে ঢাকার আহছানিয়া মিশন মিলনায়তনে একটি সেমিনার আয়োজন করে। ঢাকা আহছানিয়া মিশনের নির্বাহী পরিচালক ড. মো. এহসানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সচিব জনাব মোঃ তারিকুল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জুগ্ম-সচিব এবং জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান। আরও বক্তব্য রাখেন ডব্লিউ ডব্লিউ এফ এল এম-এর চেয়ারপার্সন তাজকেরা খায়ের ও ধ্রুবতারার নির্বাহী পরিচালক অমিয় প্রাপণ চক্রবর্তী। বক্তাগণ তাদের বক্তৃতায় পারিবারিক জীবনের সমসাময়িক সমস্যা ও শান্তিপূর্ণ সমাজ গঠনে পরিবারের সদস্যদের ভূমিকার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। দিবসটি উপলক্ষে জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী পাঠ করেন অমৃতা দাশ। বিভিন্ন পেশার প্রায় শতাধিক অংশগ্রহণকারী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এসকাপ অর্থনৈতিক এবং সামাজিক জরিপ ২০১৫ প্রকাশ

01গত ১৪ এপ্রিল এসকাপ অর্থনৈতিক এবং সামাজিক জরিপ ২০১৫ এক সাংবাদিক সম্মেলন ও মুক্ত আলোচনার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়। ঢাকাস্হ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র এবং জাতিসংঘ আবাসিক সমন্বয়কারী অফিস যৌথভাবে এসকাপের সহযোগিতায় রির্পোটটি প্রকাশ করে। প্রকাশনা অনুষ্ঠানের শুরুতে এসকাপ এর নির্বাহী পরিচালক ড. শামশাদ আক্তার প্রদত্ত একটি ভিডিও বাণী প্রদর্শিত হয়। অনুষ্ঠানে রির্সোস পার্সন হিসাবে বক্তব্য উপস্থাপণ করেন এসকাপের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ড. সৈয়দ নুরুজ্জামান, বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষনা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস) এর মহাপরিচালক ড. কে. এ. এস মুর্শিদ এবং ইউএনডিপির কান্ট্রি ডিরেক্টর মিস পলিন থেমাসিস। ঢাকাস্হ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। অনুষ্ঠানে গনমাধ্যমের প্রতিনিধিগণ প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণ করেন। এছারাও অর্থনীতিবিদ, সরকারি কর্মকর্তা, এনজিও প্রতিনিধি, নাগরিক সমাজ, গবেষক, যুব প্রতিনিধি এবং শিক্ষাবিদবৃন্দ মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ।

জ্ঞান বৈষম্য হ্রাসকরণ: স্কুল পর্যায়ে জাতিসংঘ ও তথ্য সাক্ষরতা বিষয়ে প্রশিক্ষণ

IL 01ঢাকা, ১৮ই এপ্রিল ২০১৫: ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র এবং সেন্টার ফর ইনফরমেশন স্টাডিজ যৌথভাবে ১৭ ও ১৮ই এপ্রিল সাভার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতিসংঘ ও তথ্য সাক্ষরতা বিষয়ে দুই দিন ব্যাপী এক প্রশিক্ষণের আয়োজন করে। স্কুলের ৪০ জন শিক্ষার্থী প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন। স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই প্রশিক্ষণে সাভার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা প্রদান করেন। জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিশেষ অতিথি হিসেবে সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা প্রদান করেন। তিনি তার বক্তব্যে জ্ঞান বৈষম্য হ্রাসকরণ এবং বিভিন্ন স্তরের জাতিসংঘ তথ্য সেবার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এটি ছিল স্কুল ছাত্রীদের সক্ষমতা তৈরির জন্য দ্বিতীয় প্রশিক্ষণ। প্রশিক্ষণের রিসোর্স পার্সনস ছিলেন ঢাকা আহছানিয়া মিশনের পরিচালক (যোগাযোগ) কাজী আলী রেজা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. মেজবাহ-উল-ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাডজাঙ্কট ফ্যাকাল্টি জনাব মিনহাজ উদ্দিন আহমেদ, জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান এবং কয়েকজন ছাত্রী। সমাপনী অনুষ্ঠানে সকল প্রশিক্ষণার্থীকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।