বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষ্যে জাতিসংঘ মহাসচিব এন্তোনিও গুতেরেস এর বাণী, ৩ মে ২০১৯

একটি মুক্ত গণমাধ্যম শান্তি, ন্যায়বিচার, টেকসই উন্নয়ন এবং মানবাধিকারের জন্য অপরিহার্য ।

স্বচ্ছ এবং নির্ভরযোগ্য তথ্যে প্রবেশাধিকার ছাড়া কোন গণতন্ত্রই সম্পূর্ণ নয় । ন্যায্য ও নিরপেক্ষ প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে, নেতাদের জবাবদিহীতায় নিয়ে আসতে এবং ক্ষমতার সামনে সত্য বলার জন্য এটিই হচ্ছে মূল ভিত্তি ।

এটি নির্বাচনী মৌসুমে বিশেষ ভাবে সত্য, যা এবছরের বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের কেন্দ্রবিন্দু ।

মিথ্যা নয় বরং সত্যর মাধ্যমে জনগণকে তাদের প্রতিনিধি নির্ধারনে নির্দেশনা প্রদান করা উচিত ।

এখনো পর্যন্ত প্রযুক্তি তথ্য প্রাপ্তি ও ভাগাভাগিতে রুপান্তর হিসাবে কাজ করছে । কোন কোন সময় মতামতকে বিভ্রান্ত করতে এবং সহিংসতা ও ঘৃণা উসকে দিতে ব্যবহৃত হয় ।

নাগরিকদের স্থান বিপজ্জনক হারে বিশ্বব্যাপী সঙ্কুচিত হচ্ছে ।

এবং গণমাধ্যম-বিরোধী শব্দালংঙ্করন বৃদ্ধি পাচ্ছে, এগুলো নারী সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে খুবই সহিংসতা ও হয়রানিমূলক ।

ক্রমবর্ধমান হামলার সংখ্যা বৃদ্বি এবং দায়মুক্তির সংস্কৃতির কারণে আমি গভীরভাবে উদ্বিঘ্ন ।

ইউনেস্কোর মতে, ২০১৮ সালে প্রায় ১০০ সাংবাদিক নিহত হন।

শত শত সাংবাদিক কারাগারে ।

যখন গণমাধ্যম কর্মীরা লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়, তখন সম্পূর্ন সমাজেকে এর মূল্য পরিশোধ করতে হয় ।

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসে, আমি সকলকে সাংবাদিকদের অধিকার রক্ষার আহ্বান জানাই, যাদের প্রচেষ্টা সবার জন্য একটি উন্নততর বিশ্ব গড়ে তুলতে আমাদেরকে সাহায্য করে।

ধন্যবাদ ।