বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুনের বাণী, ২ এপ্রিল ২০১৪

autismdayএ বছরের বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস অটিজম স্পেক্টার্ম সম্পন্ন ব্যক্তিদের সৃষ্টিশীল মনকে উদযাপন এবং তাদের বিশাল সম্ভাবনাকে অনুধাবন করে তাদের সহায়তাকল্পে আমাদের প্রতিশ্রুতি পুনব্যত্ত করার এই সুযোগ এনে দিয়েছে।

অটিজমে আক্রান্ত ব্যক্তিবর্গ যথা – অবিভlবক, শিশু, শিক্ষক, এবং বন্ধু প্রত্যেকের সাথে মিলিত হওয়া আমার জন্য এক অমূল্য অভিজ্ঞতা। তাদের শক্তি উৎসাহব্যঞ্জক। তারা শিক্ষা, কর্মসংস্থান ও একত্রিত হওয়ার জন্য সম্ভাব্য সকল সু্যােগ পাওয়ার যোগ্য।

আমাদের সমাজের অগ্রগতি পরিমাপ করতে হলে আমাদের এই বিষয়গুলো ক্ষতিয়ে দেখা উচিত যে, অটিজমে আক্রান্ত ব্যক্তি, সমাজে যারা ভিন্ন যোগ্যতা সম্পন্ন, তারা কতটুকু পূর্নমর্যাদাবান সদস্য হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে এবং একসাথে কাজ করতে পারছে।

শিক্ষা এবং কর্মসংস্থান হলো চাবিকাঠি। বিদ্যালয় শিশুদেরকে তাদের সম্প্রদায়ের সাথে যুক্ত করে। কর্মসংস্থান প্রাপ্ত বয়স্কদেরকে তাদের সমাজের সাথে যুক্ত করে। অটিজমে আক্রান্ত ব্যাক্তিও একই পথে হাটার যোগ্যতা রাখে। ভিন্ন প্রকার শিক্ষা গ্রহনের যোগ্যতাসম্পন্ন শিশুদের মূলধারা ও বিশেষায়িত বিদ্যালয়ে অন্তর্ভুক্তিকরনের মাধ্যমে আমরা আচরণের পরিবর্তন ও শ্রদ্ধাবোধ বাড়াতে পারি। অটিজমে আক্রান্ত প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য উপযুক্ত কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরির মাধ্যমে আমরা তাদেরকে সমাজের সাথে একত্রিত করতে পারি।

অর্থনৈতিক সীমাবদ্ধতার এই সময়ে সরকারকে অবশ্যই কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে বিনিয়োগ চালিয়ে যেতে হবে যাতে করে অটিজম আক্রান্তরা উপকৃত হয়। আমরা যখন তাদের ক্ষমতায়ন করি, তখন আমরা বর্তমান এবং ভবিষৎ প্রজন্মকে এগিয়ে নেই।

দূর্ভাগ্যজনকভাবে পৃথিবীর অনেক অংশে তাদের মৌলিক মানবাধিকারকে অস্বীকার করা হয়। তারা বৈষম্য এবং বঞ্চনার সাথে লড়াই করছে। এখনো তাদের মৌলিক সেবা পাওয়ার জন্য সংগ্রাম করতে হয়, এমনকি যে জায়গায় তাদের অধিকার নিশ্চিত সেখানেও মৌলিক সেবা পেতে এখনও তাদের লড়াই করতে হচ্ছে।

জাতিসংঘের ‘প্রতিবন্ধীদের অধিকার বিষয়ক চুক্তি’ সবার জন্য সুন্দরতর পৃথিবী তৈরির একটি শক্তিশালী কাঠামো প্রদান করেছে।

বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস হচ্ছে সচেতনতা তৈরির থেকেও বেশী কিছু। এটি হচ্ছে কাজ করার আহবান। অধিকতর অগ্রগতি সাধনের লক্ষ্যে বিভিন্ন শিক্ষামূলক কার্যক্রম, কর্মসংস্থানের সুযোগ ও অন্যান্য কার্যক্রমকে সমর্থনের মাধ্যমে অন্তর্ভুক্তমূলক পৃথিবী বিনির্মাণে আমাদের সন্মিলিত লক্ষ্য অর্জনে আপনাদের সকলকে অংশগ্রহনের জন্য আমি আহবান জানাচ্ছি।