ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষে কর্মশালা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত

01ঢাকা ২৯ অক্টোবর ২০১৬ :  জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাতিসংঘ সমিতি (ডুমুনা) এবং জাতিসংঘ যুব ও ছাত্র সমিতি বাংলাদেশ (ইউনিস্যাব) যৌথ ভাবে দিনব্যাপী এক কর্মশালা ও সেমিনার আয়োজন করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর সি মজুমদার হলে আয়োজিত এই সেমিনারে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ২০০ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সেমিনারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (জাতিসংঘ) মোসাম্মত শাহানারা মনিকা বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন এবং জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান  মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডালেম চন্দ্র বর্মণ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ডঃ দেলোয়ার হোসেন এবং ঢাকা আহসানিয়া মিশনের পরিচালক ( যোগাযোগ) কাজি আলি রেজা  রিসোর্স পার্সন হিসেবে বক্তব্য রাখেন। সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনিস্যাব সভাপতি মামুন মিয়া ও ডুমুনা সভাপতি ওয়াহিদ সিদ্দিক। এতে মডেল ইউএন সম্মেলনের বিভিন্ন পদ্ধতি এবং জাতিসংঘ দিবসের প্রাসঙ্গিকতা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়াও একটি চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। সেমিনারে উপস্থিত অংশগ্রহণকারীদের মাঝে জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী বিতরণ করা হয়।

জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষ্যে সিম্পোজিয়াম আয়োজিত

rc-ai  ২৯ অক্টোবর, ২০১৬: জাতিসংঘ দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ জাতিসংঘ সমিতি সিরডাপ মিলনায়তনে ২৯ অক্টোবর এক সিম্পোজিয়ামের আয়োজন করে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত পররাষ্ট্র সচিব (দ্বিপক্ষীয় ও কনস্যুলার) জনাব কামরুল আহসান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন এবং বাংলাদেশে জাতিসংঘের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক সমন্বয়কারী আর্জেন্টিনা মাটাভেল পিচিন সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন  ইতিহাসবিদ অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন এবং সভাপতিত্ব করেন জাতিসংঘ সমিতির সভাপতি বিচারপতি কাজী এবাদুল হক । জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান, জাতিসংঘের মহাসচিবের বাণী পাঠ করেন এবং এটি অংশগ্রহণকারীদের মাঝে বিতরণ করা হয়। সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় সাবেক স্পিকার কর্নেল(অব.) শওকত আলী এমপি। সরকারি কর্মকর্তা, সুশীল সমাজ ও এনজিও প্রতিনিথি, যুব প্রতিনিধি ও শিক্ষাবিদ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। সেমিনারের বক্তাবৃন্দ জাতিসংঘের ইতিহাসের উপর আলোক পাত করেন এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে শান্তি ও উন্নয়ন প্রক্রিয়া নিশ্চিতকরণে এগিয়ে আসা, পাশাপাশি ২০৩০ এজেন্ডা অর্থাৎ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নে সহযোগিতায় আহ্ববান জানান । বাংলাদেশ জাতিসংঘ সমিতির মহাসচিব অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

জাতিসংঘ দিবসে ঢাকায় চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা এবং র‍্যালীর আয়োজন

01    ২৪ অক্টোবার ২০১৬: জাতিসংঘ দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র, ঢাকাবাসী সংগঠন, লাইফ এবং বাংলাদেশ জাতীয় যুব সংগঠন ফেডারেশন  যৌথভাবে হাজারীবাগ পার্ক কমিউনিটি সেন্টারে এক শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা এবং র‍্যালীর আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আক্তারুজ্জামান এবং বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান । ঢাকাবাসী সংগঠনের সভাপতি শুকুর সালেক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। বিভিন্ন স্কুল থেকে আগত শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী এই চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও জাতিসংঘের স্মরণিকা প্রদান করা হয়। স্থানীয় সমাজকর্মী ও যুব প্রতিনিধিবৃন্দ এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন, পরে সবার অংশগ্রহণে এক র‍্যালীর আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশে জাতিসংঘ দিবস পালন – পত্রিকা ক্রোড়পত্র, ২৪ অক্টোবর ২০১৬

14711472_1239418022787132_6068649651765503294_o

জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষ্যে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন-এর বানী, ২৪শে অক্টোবর ২০১৬

featured-image-messages     এ বছরের জাতিসংঘ দিবসটি বিশ্ব এবং জাতিসংঘের সন্ধিক্ষণের একটি পর্যায়ে পালিত হচ্ছে।

২০৩০ সাল নাগাদ টেকসই উন্নয়নের মহান অঙ্গীকার পূরণের প্রতিশ্রুতিসহ মানবতা টেকসই যুগে প্রবেশ করেছে। সংস্থাটির ৭১তম বছরে, একটি সুস্থ গ্রহে সবার জন্য উন্নততর ভবিষ্যত গড়ার লক্ষ্যে নিজেদের গতিশীল করতে আমাদের রয়েছে ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা।

জীবাশ্ম জ্বালানি দাহনই সমৃদ্ধির পথ, দীর্ঘদিন পর বিশ্ব এই মনোভাব থেকে বেরিয়ে আসছে। রেকর্ড উষ্ণতার একটি সময়ে সদস্য রাষ্ট্রগুলো রেকর্ড সময়ের ভিতরে জলবায়ু পরিবর্তনের প্যারিস চুক্তি গ্রহণ করেছে। এই ঐতিহাসিক পদক্ষেপটি আগামী ৪ঠা নভেম্বর কার্যকর হবে। সবুজতর, অধিকতর পরিষ্কার, কম কার্বন নিঃসরণের শ্রেষ্ঠ সম্ভাবনা নিহিত রয়েছে এই ঐতিহাসিক সীমারেখায়। বিস্তারিত পড়ুন

চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাবে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ে সেমিনার আয়োজিত

01চট্রগ্রাম,মঙ্গলবার ০৬ অক্টোবর ২০১৬: চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাব এবং নিপ্পণ একাডেমীর সহযোগিতায় ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাব অডিটোরিয়ামে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বিষয়ে একটি সেমিনারের আয়োজন করে।  বিভাগীয় পর্যায়ে এসডিজি প্রচারণা এবং ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি’র ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে  জনগণের সম্পৃক্ততা বাড়ানোর লক্ষ্যেই এই সেমিনারটির আয়োজন করা হয়। উল্লেখ্য বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নে বাংলাদেশ সরকার মূল ভূমিকা পালন করছে। জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলো কর্তৃক ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে নিউইয়র্কে টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা ২০৩০ গৃহীত হয় । সেমিনারে  জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান, এসডিজি  উন্নয়ন  লক্ষ্যমাত্রা এবং তার প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে আলোচনা করেন। জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী উদ্ধৃতি করে তিনি বলেন কাওকে বাদ না রেখে এই উন্নয়ন কার্যক্রম এগিয়ে নিতে হবে, এবং জাতিসংঘ এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার এবং অন্যান্য সহযোগী প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করে চলেছে। বিস্তারিত পড়ুন

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ক সেমিনার

e.

চট্রগ্রাম, বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০১৬: টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা-২০৩০ অর্জনে তরুণদের সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র এবং চট্রগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি যৌথভাবে ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি মিলনায়তনে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ে একটি সেমিনারের আয়োজন করে। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন  জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান। চট্টগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির মাননীয় উপাচার্য ডঃ মাহফুজুল হক চৌধুরী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন এবং বিশেষ হিসেবে বক্তব্য রাখেন  নিপ্পন একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ও জাপানের অনারারি কনসাল জেনারেল  মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম। জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তার বক্তব্যে ১৭টি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা এবং ১৬৯টি  টার্গেট নিয়ে আলোচনা করেন যা ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সদস্যদেশগুলো কর্তৃক গৃহীত হয়। উল্লেখ্য ১৫ বছরের জন্য তৈরী এই ১৭টি  বৈশ্বিক লক্ষ্যমাত্রা ২০১৬ থেকে শুরু হয়ে ২০৩০ সাল নাগাদ অর্জনের সময়সীমা নির্ধারিত হয়েছে। উন্মুক্ত  আলোচনা পর্বে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। অনুষ্ঠানে  জাতিসংঘের মানবিক কার্যক্রমের ওপর একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। উপস্থিত ছাত্রছাত্রীর মাঝে জাতিসংঘের প্রকাশনাসহ এসডিজি  পোষ্টকার্ড বিতরণ  করা হয় ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো মডেল জাতিসংঘ সম্মেলন ২০১৬

untitled-1  রাজশাহী, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬: জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের সহযোগিতায় বাংলাদেশ জাতিসংঘ যুব ও ছাত্র সমিতি গত ২৯ সেপ্টেম্বর  থেকে ০২অক্টোবর  পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চার দিনব্যাপী “ইউনিস্যাব মডেল জাতিসংঘ সম্মেলন ২০১৬” আয়োজন করে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে তিন শতাধিক প্রতিনিধি এই মডেল সম্মেলনে অংশ নেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের  সহযোগী অধ্যাপক ও ছাত্র উপদেষ্টা মোঃ মিজানুর রহমান, জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান এবং সাবেক ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক মোঃ সাদেকুল আরেফিন মাতিন বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন। ইউনিস্যাব সভাপতি মামুন মিয়া উদ্বোধনী পর্বে সভাপতিত্ব করেন। জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  এসডিজি লক্ষ্য মাত্রা অর্জনে ও জাতি গঠনে তরুণ নেতাদের সংযুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান। এই ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল বিশ্ব সম্প্রদায়ের মাঝে অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত সন্ধি। বিস্তারিত পড়ুন

আন্তর্জাতিক অহিংসা দিবস উপলক্ষে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন এর বানী: ২ অক্টোবর ২০১৬

gunপ্রতি বছর আন্তর্জাতিক অহিংসা দিবসের এই দিনে আমরা শান্তির লক্ষ্যে আমাদের প্রতিশ্রুতি পুনঃব্যক্ত করি, যার ভিত্তি মহাত্মা গান্ধীর জীবনদর্শন, যিনি ১৪৭ বৎসর পূর্বে এই দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

আমরা জানি যে, অহিংসার সংস্কৃতি অন্যের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের মাধ্যমে শুরু হয়, যা সেখানেই থেমে থাকে না। শান্তিকে লালন করতে হলে আমাদের অবশ্যই প্রকৃতিকে শ্রদ্ধা জানাতে হবে। আমি আনন্দিত এ বছরের আন্তর্জাতিক অহিংসা দিবসে স্থিতিশীলতা ও পরিবেশের উপর আলোকপাত করা হয়েছে।

গান্ধী তাঁর প্রতিটি কাজে সকল জীবিত বস্তুর প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতাকে সন্মান দেখিয়েছেন। তিনি আমাদের স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন যে “ধরিত্রী প্রতিটি লোকের প্রয়োজন মেটাতে যথেষ্ট দিয়েছে, কিন্তু লোভ মেটাতে নয়”। এছাড়া আমরা পৃথিবীর যেরকম পরিবর্তন দেখতে চাই তা করার  চ্যালেঞ্জ গান্ধী আমাদের সামনে রেখেছে।

বিস্তারিত পড়ুন

আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস উপলক্ষ্যে গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

111
ঢাকা,১লা অক্টোবর ২০১৬: গত ২৮ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবসকে সামনে রেখে ঢাকাস্থ জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্র ও অন্যান্যদের সহযোগিতায়  দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ  ‘প্রবীণদের সমস্যাঃ পরিবার ও সমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠক ঢাকা আহছানিয়া মিশন মিলনায়তনে আয়োজন করে। গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা আহছানিয়া মিশনের প্রেসিডেন্ট কাজী রফিকুল আলম। এবারের আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবসের মূল প্রতিপাদ্য ছিল ‘বয়স বৈষম্য দূর করুন’।  গোলটেবিল বৈঠকটিতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রবীণ হিতৈষী সংঘের মহাসচিব ও জরা বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. এএসএম আতিকুর রহমান। বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘ তথ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান. তিনি তার বক্তব্যে প্রবীণদের নিয়ে জাতিসংঘের নানা কর্মসূচি ও পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন জাতিসংঘ সকল ধরণের বৈষম্য বিরোধী। প্রবীণ বান্ধব চিকিৎসা ব্যবস্থা গড়ে তোলার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।  সভাপতি কাজী রফিকুল আলম বলেন, ঢাকা আহছানিয়া মিশন প্রবীণদের সেবা করার জন্য দুইটি জরা বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট গড়ে তুলবে।  দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের যুগ্ম সম্পাদক কাজী আলী রেজা গোলটেবিল বৈঠকটি সঞ্চালনা করেন। গোলটেবিল বৈঠকের ক্রোড়পত্র ১লা অক্টোবর দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ-এ প্রকাশিত হয়। – ক্রোড়পত্রটি দেখতে ক্লিক করুন